Currently set to Index
Currently set to Follow
Books

তারানাথ তান্ত্রিক সমগ্র PDF – taranath tantrik somogro book pdf

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় আরণ্যক ডাউনলোড –

বইঃ তারানাথ তান্ত্রিক সমগ্র
লেখকঃ বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়
তারাদাস বন্দ্যোপাধ্যায়
 
বিভূতিভূষণের সৃষ্ট চরিত্র তারানাথ তান্ত্রিক। কিন্তু তিনি মাত্র দুটো গল্প লিখতে পেরেছিলেন। তার মৃত্যুর পর তার ছেলে তারাদাস বন্দ্যোপাধ্যায় এই চরিত্র দারুণ করে ফুটিয়ে তুলে একেক পর এক গল্প বলে গেছেন। একদমই মনে হয়নি এটা তারাদাস এর নিজস্ব তৈরি চরিত্র না। একদম জীবন্ত একটা চরিত্র। মনে হয় চোখের সামনে বসে সে কলকেতে টান দিচ্ছে আর গল্প বলছে।
তারানাথ তান্ত্রিক একজন সাধক, তার জন্ম হয় এমন এক লগ্নে যখন আকাশে নীল উল্কাপাত হয়। যৌবনের ভবঘুরে তারানাথ বিভিন্ন অলৌকিক ঘটনার সম্মুখীন হন। একেক পর এক সেসব ঘটনা বলে যান লেখক ও তার বন্ধু কিশোরি সেনকে।
তারা যখন গল্প শোনে তখন মন্ত্রমুগ্ধের মতো শোনে। বিশ্বাসও করে। তবু মট লেনের বাড়ি ছাড়াতেই তাদের সব বিশ্বাস উবে যায় আস্তে আস্তে। তবে কি তারানাথ সব মিথ্যে গল্প বলে?
তারানাথ যে মিথ্যে গল্প বলে না, তার প্রমান পাওয়া যায় অলাতচক্র উপন্যাসে।
পুরো বইটা নিরেট গল্পে ঠাসা। যারা এসব আধিভৌতিক গল্প পছন্দ করে তাদের জন্য মাস্টরিড। তবে আমার মনে হয়েছে গল্পগুলো আমার এখান থেকে পাঁচ বছর আগে পড়া উচিত ছিল। তাহলে আসল মজাটা পেতাম। এখন পড়েও ভালো লেগেছে, কিন্তু ঐ অতিরিক্ত ভয়টা পেলাম না বলে আফসোস হচ্ছে।
গল্পের ভালো দিক হচ্ছে এ একদম সরস এবং নিরেট গল্প। এসএসসি বা ইন্টারমিডিয়েট যারা পড়ে তারা বইটা পড়ে খুব মজা পাবে।
গল্পের খারাপ দিক হলো একই কথা বারবার প্রতি গল্পে বলা হয়েছে, যেমন মধুসুন্দরী দেবী আবির্ভাব এর গল্প, মাতু পাগলীর কথা। এটা বেশ বিরক্তিকর লেগেছে। এই যা।
আর লোভনীয় বিষয় হলো বর্ষাকালে গল্প বলা। আমিও বৃষ্টির দিনে পড়েছি বইটা। কচুড়ি, গরম তেলেভাজা, জিলিপি আর চা। পড়ে আমার বারবার চা খেতে হয়েছে।
পরিশেষে বলা যায় এটা একটা দারুণ নিরেট আধিভৌতিক গল্পের বই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker